tota-pakhi

পরকীয়া ফাঁস করল তোতাপাখি

কথায় বলে তোতাপাখির বুলি! শেখানো কথা আওড়াতে তোতা যে খুবই পটু সে কথা সবাই জানে। কিন্তু বাড়ির পোষা তোতা যে বুলি আওড়ে এমন সর্বনাশ করতে পারে তা কী দুঃস্বপ্নেও ভেবেছিলেন কুয়েতের এক নাগরিক! সেই তোতা স্ত্রীর কাছে স্বামীর দুষ্কর্মের কথা ফাঁস করে দিল। শেষ পর্যন্ত জেলে যাওয়ার রাস্তা তৈরি হয়েছিল ওই স্বামীর। আরব টাইমসের এক প্রতিবেদনে তোতার এই আশ্চর্য কীর্তির কথা জানানো হয়েছে। বাড়ির গৃহকর্মীর সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েছিলেন। অনেকদিন থেকেই স্ত্রীর মনে সন্দেহ দানা বাঁধছিল। কিন্তু তেমন কোনো প্রমাণ পাচ্ছিলেন না স্ত্রী। গোপনে গৃহকর্মীর সঙ্গে প্রেমালাপ করতেন ওই নারীর স্বামী। রসালো ওই প্রেমালাপ ‘ঠোঁটস্থ’ হয়ে যায় বাড়ির পোষা তোতার। একদিন হঠাৎ ওই নারীর সামনে স্বামী ও গৃহকর্মীর প্রেমালাপ আওড়াতে শুরু করে তোতা। সেই সংলাপ শুনে স্ত্রীর সন্দেহ দৃঢ় হয়। তিনি কুয়েতের হাওয়ালি থানায় স্বামীর বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ করেন। ওই নারী বলেছেন, এজন্যই অফিস থেকে আগে বাড়ি ফিরে এলে তার স্বামী হকচকিয়ে যেতেন। কুয়েতে ব্যাভিচার নিষিদ্ধ। দোষ প্রমাণ হলে কারাদণ্ডের বিধান রয়েছে। ওই নারীর অভিযোগের ভিত্তিতে জেলে যেতে হতে স্বামীকে। কিন্তু পুলিশের বক্তব্য, এই মামলায় পাকা প্রমাণ নেই। কারণ তোতার বুলিকে প্রমাণ হিসেবে আদালতে পেশ করা সম্ভব নয়। টিভি বা রেডিওতে যে তোতা ওই প্রেমালাপ শিখেনি, তা প্রমাণ করা আদালতে সম্ভব হবে না। কাজেই অল্পের জন্য ওই নারীর স্বামী রক্ষা পেয়ে গেলেন বলে মনে করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *