RISHA FINAL

উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজে স্কুলছাত্রীকে কুপিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করেছে বখাটে

তৌহিদুর রহমান হিসান
রাজধানীর কাকরাইলে অবস্থিত উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজের সুরাইয়া আক্তার রিশা (১৫) ৮ম শ্রেণির এক ছাত্রীকে কুপিয়ে মারাত্মকভাবে আহত করেছে এক বখাটে। আজ দুপুর সোয়া ১২টার দিকে কাকরাইলের ফুটওভার ব্রিজে এ ঘটনা ঘটে। বর্তমানে সে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তার পেটের বাম পাশে ও বামহাতে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। রিশার বাসা বংশার থানার সিদ্দিক বাজার এলাকায়। উইলস লিটল ফ্লাওয়ারের একাদশ শ্রেণির ছাত্র রাফি জানায়, সে ফুট ওভার ব্রিজের নিচ দিয়ে কলেজে যাচ্ছিল। এ সময় চিৎকার শুনে ফুট ওভার ব্রিজের ওপরে গিয়ে রিশাকে আহত অবস্থায় দেখতে পাই এবং একজনকে দৌড়ে পালাতে দেখি। তারপর সেখান থেকে উদ্ধার করে প্রথমে কাকরাইল ইসলামী ব্যাংক হাসাপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসাপাতালে নিয়ে আসা হয়। রমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মশিউর রহমান জানান, রিশার পেটের বাম পাশে ও বাম হাতে ছুরির আঘাত রয়েছে। তার অবস্থা গুরুতর বলেও জানান তিনি। আহতের মা তানিয়া হোসেন জানান, ৫ থেকে ৬ মাস আগে রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডে অবস্থিত ইস্টার্ন মল্লিকা শপিং মলে বৈশাখী টেইলার্স নামে একটি টেইলার দোকানে জামা বানাতে দেয় রিশা। ওই সময় তার মোবাইল নম্বরটিও দেওয়া হয়। এরপর থেকে ওই টেইলারের দোকানের একজন কাটিং মাস্টার তার মেয়েকে প্রায়ই ফোন করে উত্যক্ত করতো। পরে বাধ্য হয়ে ফোনের সে সিমটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। এরপর স্কুলে যাওয়া আসার পথে প্রায়ই ওই কাটিং মাস্টার তার মেয়েকে বিরক্ত করতো। স্কুলের গেইটের সামনে দাঁড়িয়ে থাকতো। তিনি ধারণা করছেন, ওই কাটিং মাস্টার এ ঘটনা ঘটাতে পারে। তিনি আরও বলেন, তার নাম জানা নেই। তবে ওই ছেলের চেহারা তার মেয়ের জানা রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *