Simanto Bank

লাইসেন্স পেল সীমান্ত ব্যাংক

অবশেষে সীমান্ত ব্যাংক নামে নতুন একটি ব্যাংকের লাইসেন্স দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এর ফলে দেশে তফসিলি ব্যাংকের সংখ্যা ৫৬ থেকে বেড়ে ৫৭-তে দাঁড়ালো। সকল তফসিলি ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীকে এ বিষয়ে অবহিত করতে বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংকের ব্যাংকিং প্রবৃধি ও নীতি বিভাগ থেকে এক সার্কুলার জারি করা হয়েছে। গতকালই তা সকল ব্যাংকের কাছে পাঠানো হয়েছে।সার্কুলারে বলা হয়েছে, ২১ জুলাই থেকে সীমান্ত ব্যাংক লিমিটেডকে তফসিলি ব্যাংকরূপে তালিকাভুক্ত করা হলেও বিষয়টি বাংলাদেশ গেজেটের অতিরিক্তি সংখ্যায় গত ১ আগস্টে মুদ্রিত হয়েছে। বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে এ বিষয়ে জারি করা অপর এক সার্কুলারে বলা হয়েছে, ব্যাংক কোম্পানি আইন ১৯৯১ এর সংশোধিত ২০১৩-এর ২১২ ধারায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে বাংলাদেশ ব্যাংক বিজিবি ওয়েলফেয়ার ট্রাস্ট সীমান্ত ব্যাংকের শেয়ার ধারণের ক্ষেত্রে অঅইনের ১৪ক(১) ধারা প্রযোজ্য হবে না বলে ঘোষণা করেছে। ১৪ক(১) ধারায় বলা হয়েছে, কোনো ব্যক্তি, কোম্পানি বা একই পরিবারের সদস্যদের মধ্যে ব্যাংকের শেয়ার কেন্দ্রীভূত করা যাবে না এবং কোনো ব্যক্তি, কোম্পানি বা কোনো পরিবারের সদস্য একক, যৌথ বা উভয়ভাবে কোনো ব্যাংকের শতকরা দশ ভাগের বেশি শেয়ার কিনতে পারবেন না। বাংলাদেশ ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, ট্রাস্ট ব্যাংকের আদলে সীমান্ত ব্যাংকের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বা বিজিবির সদস্যরাই এ ব্যাংকের শেয়ারহোল্ডার। সেনাবাহিনীর ট্যাস্ট্রের মতো বিজিবি ওয়েল ফেয়ার ট্রাস্ট গঠন করা হয়েছে। ওই ট্রাস্ট এবি ব্যাংকে একটি অ্যাকাউন্ট খুলেছে। ওই অ্যাকাউন্টে পরিশোধিত মূলধনের ৪০০ কোটি টাকা জমা দিয়েছে। ইতোমধ্যে এবি ব্যাংক থেকে এ ৪০০ কোটি টাকা বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুকূলে লিয়েন নিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংককে অবহিত করেছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদে এ ব্যাংকের নাম অনুমোদন দেয়ার পর সর্বসম্মতিক্রমে সীমান্ত ব্যাংকের লাইসেন্স দেয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *